রমযান : লাইলাতুল কদর অন্বেষণ

প্রশ : আমরা জানি, লাইলাতুল কদর রমযানের শেষ দশকে হয়। এখন আমার জানার বিষয় হলো, এটা শেষ দশকের যে কোনো রাতে হতে পারে নাকি শুধু বিজোড় রাতে হয়ে থাকে? এ বিষয়ে দু’রকম কথা শুনতে পাচ্ছি। দয়া করে এর সঠিক সমাধান দিয়ে কৃতজ্ঞ করবেন।

উত্তর : হাদীসে শেষ দশকের রাতগুলোতে লাইলাতুল কদর অন্বেষণের তাগাদা দেয়া হয়েছে। যেমন সহীহ বুখারীর বর্ণনায় এসেছে-

 عَنْ عَائِشَةَ، قَالَتْ: كَانَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يُجَاوِرُ فِي العَشْرِ الأَوَاخِرِ مِنْ رَمَضَانَ وَيَقُولُ: تَحَرَّوْا لَيْلَةَ القَدْرِ فِي العَشْرِ الأَوَاخِرِ مِنْ رَمَضَانَ

অর্থাৎ আয়েশা রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল সা. রমযানের শেষ দশদিন ইতিকাফ করতেন এবং বলতেন, তোমরা রমযানের শেষ দশকে লাইলাতুল কদর তালাশ করো। (সহীহ বুখারী : ৩/৪৭, হা. নং ২০২০)

এ থেকে বুঝা যায়, জোড় হোক বা বিজোড় হোক রমযানের শেষ দশকের যে কোনোদিন লাইলাতুল কদর হতে পারে। অবশ্য আরেকটি বর্ণনায় শুধু বেজোড় রাতের কথা এসেছে। যেমন সহীহ বুখারীর বর্ণনায় এসেছে-

 عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا: أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، قَالَ: تَحَرَّوْا لَيْلَةَ القَدْرِ فِي الوِتْرِ، مِنَ العَشْرِ الأَوَاخِرِ مِنْ رَمَضَانَ

অর্থাৎ আয়েশা রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল সা. ইরশাদ করেছেন, তোমরা রমযানের শেষ দশকের বিজোড় রাতগুলোতে লাইলাতুল কদর তালাশ করো। (সহীহ বুখারী : ৩/৪৬, হা. নং ২০১৭)

উভয় হাদীসের সমষ্টিতে প্রতীয়মান হয় যে, রমযানের শেষ দশকের সব রাতেই লাইলাতুল কদর তালাশ করা উচিত। অবশ্য এ রাতগুলোর মাঝে বিজোড় রাতের গুরুত্ব তুলনামূলকভাবে একটু বেশী। তাই আমাদের জন্য বিজোড় রাতগুলোর পাশাপাশি জোড় রাতগুলোতেও এর তালাশ করতে হবে। অন্যথায় লাইলাতুল কদর হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।

Top