রোজাদারগণ জান্নাতের রাইয়ান দরজার দিয়ে প্রবেশ করবে

আমরা সব সময়ই একটু ভালো কিছু চাই। সেটা যাই হোক না কেন। আমাদের মৃত্যুর পর আমরা যখন জান্নাতে যাবো তখনও সেখানে রয়েছে ভালো ও অধিক ভালোর প্রশ্ন। আমরা অবশ্যই চাইবো অধিক ভালো দরজা দিয়ে অধিক ভালো জান্নাতে প্রবেশ করতে। আল্লাহর নবীর একটি হাদীস এই উম্মতকে সেই সুসংবাদই দেওয়া হয়েছে যে কিভাবে অধিক ভালো জান্নাতে যেতে পারবে।

হাদীসে এসেছে, আবূ হুরাইরা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় জোড়া বস্তু ব্যয় করে, তাকে জান্নাতের দরজাসমূহ থেকে ডাকা হবে, হে আল্লাহর বান্দা! এ দরজাটি উত্তম (এদিকে এস) সুতরাং যে নামাযীদের দলভুক্ত হবে, তাকে নামাযের দরজা থেকে ডাক দেওয়া হবে। আর যে মুজাহিদদের দলভুক্ত হবে। তাকে জিহাদের দরজা থেকে ডাকা হবে। যে রোজাদারদের দলভুক্ত হবে, তাকে রাইয়ান’নামক দরজা থেকে আহবান করা হবে। আর দাতাকে দানের দরজা থেকে ডাকা হবে।”এ সব শুনে আবূ বকর রাদিয়াল্লাহু আনহু বললেন, হে আল্লাহর রসূল! আমার মাতা-পিতা আপনার জন্য কুরবান হোক, যাকে ডাকা হবে, তার ঐ সকল দরজার তো কোন প্রয়োজন নেই। (কেননা মুখ্য উদ্দেশ্য হল, কোনভাবে জান্নাতে প্রবেশ করা।) কিন্তু এমন কেউ হবে কি, যাকে উক্ত সকল দরজাসমূহ থেকে ডাকা হবে?’তিনি বললেন, “হ্যাঁ। আর আশা করি, তুমি তাঁদের দলভুক্ত হবে’। [বুখারি  ১৮৯৭, ২৮৪১, ৩২১৬, ৩৬৬৬, মুসলিম ১০২৭, তিরমিযি ৩৬৭৪, নাসায়ি ২৪৩৯, ৩১৩৫, ৩১৮৩, ৩১৮৪, আহমাদ ৭৩৯৩, ৭৫৭৭, ৮৫৭২, মুওয়াত্তা মালিক ১০২১] ###

Related posts

Top