Tag Archives: সাম্প্রতিক পোস্ট

পবিত্র হজের পবিত্র নিদর্শন

পবিত্র হজের পবিত্র নিদর্শন

কাবা শরিফ : মুসলমানদের সর্বপ্রথম ইবাদতস্থল পবিত্র কাবা। রহমত ও বরকতপূর্ণ একস্থানের নাম কাবা। কাবা শরিফের উচ্চতা পূর্ব দিক থেকে ১৪ মিটার, পশ্চিম ও দক্ষিন দিক থেকে ১২.১১ মিটার এবং উত্তর দিক থেকে ১১.২৮ মিটার। এর ভেতরের মেঝে রঙ্গিন মার্বেল পাথরে তৈরি। এর সিলিঙ্গে তিনটি কাঠের পিলার ধরে রেখেছে। প্রতিটি পিলারের ব্যাস ৪৪ সে.মি.। কাবা

প্রযুক্তির ভাষায় হজ

বর্তমান যুগকে বিনা দ্বিধায় প্রযুক্তির যুগ বলা হয়। বিভিন্ন প্রযুক্তি পণ্য ও মাধ্যম আবিস্কৃত হয়ে গোটা পৃথিবী এখন একটি প্লাটফর্ম। মুহূর্তের মাঝে এক দেশের খবর চলে আসে অন্য দেশে। হাজার হাজর মাইল দুরের মানুষের সাথে কথা বলা যায় অনায়েশে। পৃথিবীর এই তাবৎ আবিস্কার, প্রযুক্তিরগত উন্নয়ন- সবই ইসলাম ও মুসলমনাদের জন্য মহান আল্লাহ প্রদত্ত বিশেষ নেয়ামত।

ফিতরার পরিচয় ও শরয়ী বিধি-বিধান

ফিতরা বা ফেতরা আরবি শব্দ, যা ইসলামে যাকাতুল ফিতর (ফিতরের যাকাত) বা সাদাকাতুল ফিতর (ফিতরের সদকা) নামে পরিচিত। ফিতর বা ফাতুর বলতে খাদ্যদ্রব্য বোঝানো হয় যা দ্বারা রোজাদারগণ রোজা ভঙ্গ করেন। [আল মুজাম আল ওয়াসিত, পৃষ্ঠা ৬৯৪] যাকাতুল ফিতর বলা হয় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গরীব দুঃস্থদের মাঝে রোজাদারদের বিতরণ করা দানকে। রোজা বা উপবাস পালনের পর সন্ধ্যায় ইফতার বা খাদ্য গ্রহণ করা হয়। সেজন্য রমজান মাস শেষে

ইতিকাফ : পরিচয়, উদ্দেশ্য ও ফজিলত

আল্লাহ তায়ালা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন একমাত্র তার ইবাদতের জন্য এবং তিনি তার ইবাদতের জন্য মানুষকে বিভিন্ন পন্থা-পদ্ধতি দান করেছেন। যেমন—  নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত ইত্যাদি । এগুলোর একেকটির নিয়ম পদ্ধতি সম্পূর্ণই ভিন্ন ভিন্ন। তেমনি ইতিকাফও একটি ভিন্ন ধরনের ইবাদত। এ-সময় মানুষ নিজের পার্থিব সব ব্যস্ততা ও কাজ পরিত্যাগ করে আল্লাহর দরবার তথা মসজিদে চলে যায়।

যে কাজ করলে রমজানের রোজা রাখা সহজ হয়

রমজান মাস ইবাদতের বসন্তকাল। আল্লাহর প্রিয় বান্দারা সুবর্ণ সুযোগকে কাজে লাগাতে ইবাদতে মশগুল থাকেন। রমজান শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সারা মাসের জন্য শয়তানকে বেড়িবদ্ধ করা হয়। সে কারণে রমজানের বরকতস্বরূপ দ্বীনি পরিবেশের সৌন্দর্য পরিলক্ষিত হয়। আর এ জন্যই রমজান মাস মানুষের মন ও আত্মাকে পরিশোধন করার শ্রেষ্ঠ সময়। রাসুলুল্লাহ (সা.) রমজান মাসের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতেন

Top